রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন

বঙ্গবন্ধু-১০০ ধান কৃষকের মনে আশার আলো জাগিয়েছে

বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীতে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের নতুন উদ্ভাবিত বঙ্গবন্ধু-১০০ ধান কৃষকের মনে আশার আলো জাগিয়েছে। চিকন জাতের এই ধান বিঘাতে ২৮ মন ফলন পাওয়া যাবে এমন কথা জানালে জেলার কৃষি কর্মকর্তারা।

বঙ্গবন্ধু-১০০ ধান যে কোন চিকন জাতের ধানের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করলে বগুড়া জেলা সদরের এরুলিয়া ইউনিয়নের মুজাহিদুল ইসলাম। এই ধানের বীজ কৃষকদের মধ্যে ছড়িয়ে গেলে দেশে ধানের উৎপাদন আরো বেড়ে যাবে।

বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৫ টায় বঙ্গবন্ধু-১০০ ধান কর্তন অনুষ্ঠানে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক দুলাল হোসেন জানান, জেলার ১০টি উপজেলায় কৃষক পর্যায়ে উন্নত মানের ধান,গম ও পাট বীজ উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় কৃষকদের ৫ কেজি করে ধান বীজ দিয়ে প্রদর্শণী খামার তৈরী করা হয়। এতে আশানুরুপ ফল পাওয়া যায়। এই ধান বীজ আগামী মৌসুমে কৃষকদের মধ্যে বিক্রি করবেন প্রদর্শনী জমির কৃষকরা। বঙ্গবন্ধু-১০০ ধান যে কোন জাতের চিকন ধানকে চ্যালেঞ্জ জানাবে। এ বছর জেলার ১০টি উপজেলায় ১৫০ বিঘা জমিতে বঙ্গবন্ধু-১০০ ধান চাষ করা হয়েছে। এবারের উৎপাদিত ধান আগামী বোরো মৌসুমে কৃষকদের মাঝে ছড়িয়ে দেয়া হবে।

কৃষক মাহফুজ জানান, তিনি ১ বিঘায় ২৫ থেকে ২৮ মন ধান আশা করে ছিলেন। কিন্তু অতিমারি বৃষ্টিতে ধানের ক্ষতি হয়েছে। বৃষ্টিতে ধানের ক্ষতি হওয়া সত্বেও তিনি তার ১ বিঘা জমিতে ২০ মন ধান পাবেন। আগামী বোরো মৌসুমে এই ধান ব্যাপক সাড়া জাগাবে বলে বিশ্ব করেন কৃষক মাহফুজ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.