বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:২৭ অপরাহ্ন

২০ বছর পর জানতে পারলেন তিনি নারী নয় পুরুষ!

২০ বছর পর জানতে পারলেন তিনি নারী নয় পুরুষ!

সৌদি আরবের এক নাগরিক দীর্ঘ ২০ বছর পর জানতে পারলেন তিনি আসলে নারী নন, পুরুষ। মূলত জন্মের পর তার শারীরিক গঠন মেয়ে শিশুর মতো দেখা যাওয়ায় নাম রাখা হয় রান্ডা। কিন্তু দীর্ঘ ২০ বছর পর জানা গেল তার পুরুষাঙ্গ বিশেষ কায়দায় পেটের মধ্যে লুকিয়ে রয়েছে। খবর সৌদি গেজেট।

সৌদি আরবের রিয়াদে এক সরকারি হাসপাতালে তার জন্ম হয়। জন্মের পর তার শারীরিক গঠন মেয়েদের মতো থাকায় তাকে স্বাভাবিকভাবে ডাক্তার মেয়ে শিশু মনে পরিবারকে জানায়। পরিবারের পক্ষ থেকে তারা নাম রাখা হয় রান্ডা।

কিন্তু বিপত্তি দেখা দেয় যখন সে বড় হতে থাকে। বড় বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তার শরীরে মেয়েদের কোনো গঠন দেখা যায়নি। এরপরই তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে ডাক্তার বুঝতে পারেন রান্ডা আসলে কোনো মেয়ে নয়। বরং সে ছেলে।

পুরুষ হওয়ার কথা শোনার পর রাণ্ডা বলেন, আমি শুরুতে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। আমার কাছে মনে হয়েছে ডাক্তার মিথ্যা কথা বলছে। এটা ছিল আমার কাছে পুনঃজন্মের মতো। কারণ এখন আমার নাম আবার নতুন করে রাখতে হবে। কারণ একটি নতুন নাম, নতুন একটি পরিচয়।

রানডা আরও বলেন, আমার পেটের মধ্যে পুরুষাঙ্গটি বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে আছে। এটি ঠিক করার জন্য ডাক্তার আমাকে যুক্তরাজ্যে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। সেখানে গিয়ে অপারেশন করাতে হবে।

রিয়াদের সরকারি হাসপাতাল এমন ভুল করায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ জানিয়েছে রানডার পরিবার। কিন্তু মন্ত্রণালয় থেকে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। এ বিষয়ে রানডার বাবা বলেন, ওই হাসপাতালে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে কারো কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *