বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:২৬ অপরাহ্ন

ভারতীয় অভিনেত্রীর মৃত্যু ঘিরে নতুন রহস্য, রয়েছে ষড়যন্ত্রের গন্ধ

কলকাতার মডেল বিদিশা দের মৃত্যু নিয়ে ক্রমেই রহস্য দানা বাঁধছে। একের পর এক তারকারু আত্মহ্যতার ঘটনা দেশটির চলচ্চিত্র অঙ্গনের পরিবেশ গুমোট করে দিয়েছে। তবে বিদিশার এটা আত্মহত্যা নাকি হত্যা নাকি প্ররোচণা এই নিয়ে ধন্ধে পড়েছে সবাই।
বিদিশার বন্ধুরা দাবি করেছেন যে তিনি তার প্রেমিকের উপর অত্যন্ত ক্ষুব্ধ ছিলেন এবং সেই নিয়েই সম্প্রতি বিষন্ন থাকতেন বিদিশা। একই সঙ্গে বলা হচ্ছে বিদিশা একজন সমকামী ছিলেন। আত্মহত্যার দিন বিদিশা তার সঙ্গীর সঙ্গে একটি ছবি ফেসবুকে শেয়ার করেন। যার ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন ‘আই লাভ ইউ বউ’।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম নিউজ এইটিন এর খবরে বলা হয়েছে, বিদিশার বন্ধুকে করা তার শেষ পোস্ট ঘিরে শুরু হয়েছে নতুন গুঞ্জন। গতকাল থেকেই প্রয়াত মডেল অভিনেত্রী বিদিশা দে মজুমদারের সেই পোস্ট ঘিরে শুরু হয় তুমুল বিতর্ক। ছবিতে একটি মেয়ের সঙ্গে ঘনিষ্ট অবস্থায় দেখা গিয়েছে বিদিশাকে। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন,’love you bou’।

তবে শুধু একটা ছবিতে নয় অভিনেত্রীর এরকম অনেক ছবিতেই ওই মেয়েটিকে ‘বউ ‘বলতে দেখা গিয়েছে। ছবি দেখে অনেকেই অভিনেত্রীর সমকামীতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। প্রশ্ন ওঠে বিদিশা কি উভকামী? আবার অন্যদিকে জানা যায় প্রেমিকার সঙ্গে টানাপোড়েনের কারণে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন বিদিশা। যদিও তাঁর সুইসাইট নোটে সে বিষয়ে কিছু লেখা নেই।

অন্যদিকে যে মেয়েটিকে (যার ছবি ফেসবুক পোস্টে ছিল) তার “বউ” অর্থাৎ স্ত্রী বলে ডাকা হয় বিদিশার পোস্টে, বিদিশার মৃত্যুর খবর পেয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন সেই বন্ধু।

কনের ফটোশুটের সময়ও এক নারীর কপালে সিঁদুর লাগিয়েছিলেন বিদিশা। তিনি দাবি করেছেন যে শুধুমাত্র তিনি তার ‘স্ত্রী’ এর সঙ্গে এটি করতে পারেন।

অন্যদিকে কিছুদিন আগে আরেক বাঙালি মডেল ও অভিনেত্রী মঞ্জুষা নিয়োগীকেও তার কলকাতার বাড়িতে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। মঞ্জুষা বিদিশার ঘনিষ্ট বন্ধু ছিলেন বলে জানা গিয়েছে শুধু তাই নয়, বিদিশার মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছিলেন মঞ্জুষা এমনটাও পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে।

মঞ্জুশার মা ইন্ডিয়া টুডেকে বলেন, আমার মেয়ে বারবার বলত যে সে বিদিশার সঙ্গে থাকতে চায়। সে সবসময় বিদিশার কথা বলত। এ জন্য আমি তাকে বকাঝকা করেছি। গত দুই সপ্তাহে বাংলা টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র জগতের তিন অভিনেত্রী আত্মহত্যা করেছেন। (

মঞ্জুষার মা একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে বলেন, আমার মেয়ে বারবার বলত যে সে বিদিশার সঙ্গে থাকতে চায়। সে সবসময় বিদিশার কথা বলত। এ জন্য আমি তাকে বকাঝকা করেছি। গত দু’ সপ্তাহে বাংলা টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র জগতের তিন অভিনেত্রী আত্মহত্যা করেন। আর এই একের পর এক মৃত্যু ঘিরেই ক্রমশ বাড়ছে মানসিক অবসাদ ও অন্যান্য নতুন নতুন সূত্রের ইঙ্গিত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *