শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:২৯ অপরাহ্ন

শর্ত মানলে নিবন্ধনের বিষয়ে বিবেচনা: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

বন্ধ করে দেওয়া অবৈধ ডায়াগনস্টিক ও ক্লিনিকগুলো অনুমোদনের নূন্যতম শর্ত মানলে সেগুলোকে নিবন্ধন দেয়ার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচপালক আহমেদুল কবীর।

সোমবার সকালে নিজ কার্যালয়ে তিনি বলেন, অনুমোদিত হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোতেও অভিযান চালানো হবে।

“আগামীতে মান যাছাইয়ে অনুমোদিত হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোতেও অভিযান পরিচালনা করা হবে; সে প্রস্তুতি চলছে,” বলেন তিনি।

অভিযানে বন্ধ হয়ে যাওয়া অনুমোদনহীন ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোর বিষয়ে তিনি বলেন, “অনুমোদনের নূন্যতম শর্ত পূরণ করতে পারলে তাদের নিবন্ধন দেয়ার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।”

গত দুদিনে (শনি ও রোববার) সারাদেশে অনুমোদনহীন ৮৮২টি বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং ব্লাড ব্যাংক বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে রয়েছে ১৬৭টি।

গত ২৫ মে দেশের অবৈধ ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলো নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় দেশের বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোর মনিটরিং ও সুপারভিশন বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা হয়।

আলোচনা শেষে কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সে অনুযায়ী ২৬ মে সারা দেশের অনিবন্ধিত বেসরকারি সব স্বাস্থ্যকেন্দ্র পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে বন্ধের নির্দেশনা দেয় স্বাস্থ্য অধিদফতর। পরদিন থেকে সারা দেশে শুরু হয় অভিযান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *